Cookie Policy          New Registration / Members Sign In
PrabashiPost.Com PrabashiPost.Com

বিশ্বকাপের ছায়ায়

মধ্য মে-তে যখন সাও পাওলো পৌছোই বিশ্বকাপের তখন এক মাসও বাকি নেই, সারা দুনিয়া যখন ফুটবল জ্বরে কাঁপছে তখন প্রাণকেন্দ্র যে টগবগ করবে তা অপ্রত্যাশিত ছিল না ।

Dr Prabir Ranjan Paul
Mon, Jun 9 2014

Illustration: Rajat Dey

About Dr Prabir Ranjan

An agricultural scientist of repute, Prabir is a simple, down to earth person with patriotic zeal. He likes to travel to new places and make friends. His hobby is music and photography and he believes in "Science serving the needs of the growing world."


More in Sports

ফুটবল ধর্ম

World Cup 2014: A Case of Wisdom Tooth

An Indian in Football’s Heaven

বিদায় শচীন

 
সমাপতন ! না অন্য কিছু । সাও পাওলো থেকে দেশে ফেরার ফ্লাইটে একলা বসে ভাবনাটা মনে উঁকি দিলো বেশ কয়েকবার । সারা দুনিয়া যখন রিও, সাও পাওলো-মুখি আমার যাত্রাপথের অভিমুখ তখন ব্রাজিল ছেড়ে যাওয়ার ।

স্বান্তনা একটাই – আগামী কয়েক সপ্তাহের জন্য উত্তুঙ্গ উৎসব আর বাঁধনহীন উল্লাসের গ্রাউন্ড জিরো, সারা দুনিয়ার নজরবন্দী ব্রাজিল দেখে এলাম চর্মচক্ষে । তাও আবার বিশ্বকাপের ঠিক আগ দিয়ে ।

খবরের কাগজ, টেলিভিশনের পর্দা, পর্যটন বিভাগের বিজ্ঞাপন - সর্বত্র অকৃপণ প্রশস্তি । ‘গ্রেটেস্ট শো অন আর্থ ।’

গ্রেটেস্ট-ই বটে । না হলে ব্রাজিল গেলাম কৃষি গবেষণা, ক্রপ জেনেটিক্স ইত্যাদি নিয়ে ওয়ার্কশপ-এ যোগ দিতে, আর ফিরছি যখন তখন বারবার মনে হচ্ছে, ‘যদি আর ক’টা দিন থেকে গিয়ে কয়েকটা ম্যাচ দেখে দেশে ফেরা যেত!’

ভেতো বাঙালির হোম-সিক হওয়া যেখানে দস্তুর সেখানে নিজের মনের কথা ভেবে আমি নিজেই অবাক ।

ফুটবল-জ্বর কথাটা কাগজে পড়েছি । এবারে অন্তর থেকে অনুভব করলাম । ১৮ই মে যখন সাও পাওলো পৌছোই বিশ্বকাপের তখন আর এক মাসও বাকি নেই । সারা দুনিয়া যেখানে ফুটবল-উত্তেজনায় কম্পমান সেখানে খোদ প্রাণকেন্দ্র যে টগবগ করে ফুটবে তা অপ্রত্যাশিত ছিল না । কিন্তু কাগজে পড়া বা টেলিভিশনের পর্দায় দেখা আর পরতে পরতে সেই উত্তেজনার উষ্ণতায় নিজেকে সেঁকে নেওয়া ! কোনো তুলনাই চলে না ।

যেদিকেই চোখ ফেরান, পোস্টার, ফেস্টুন আর ব্রাজিলের হলুদ জার্সি-র ছড়াছড়ি । একেকটা জার্সির দাম দু’শো রিয়াল, কিন্তু বিক্রি হচ্ছে দেদার । স্কুল-ফেরত ছেলেমেয়েরা সেই জার্সি চাপিয়ে যেন একেকজন রোনাল্ডো, রোনাল্ডিনহো, কাকা, রোমারিও । বা এ’যুগের মার্সেল, থিয়াগো সিলভা আর লুইস গুস্তাভো ।

আমার সহকর্মী রবার্তো । ওর ছেলে পেড্রো, ক্লাস এইটে পড়ে । একরত্তি ছেলের ফুটবল জ্ঞান দেখে তো আমারই চক্ষু চড়কগাছ । কোন দল কোন গ্রুপে, কে কার সাথে কবে খেলছে সব ঐ ছেলের নখ-দর্পণে ।

প্রথম দিনই ক্রোয়েশিয়ার বিরুদ্ধে মাঠে নামছে ব্রাজিল আর তা ঘিরে প্রস্তুতির শেষ নেই । শপিং মল, রেস্তোঁরা, দোকান, বাজার সর্বত্রই বড় স্ক্রিনের ছড়াছড়ি । এক মুহূর্তও মিস করা যাবে না যে!

আমার সহকর্মীরা সব দল বেঁধে ম্যাচগুলো দেখবেন বলে ঠিক করে ফেলেছেন । বিশ্বকাপের সময় ব্রাজিলজুড়ে এক ঘন্টা আগে অফিস ছুটি, যাতে সবাই জমিয়ে খেলা দেখতে পারেন ।

ভাববেন না বিশ্বকাপ নিয়ে এই মাতামাতি শুধু শহর বা আধা-শহরেই সীমাবদ্ধ ! কৃষি গবেষণার সুত্রে যখন গ্রামেও গিয়েছি সেখানেও সেই একই ছবি ।

মাঠে কাজের ফাঁকে কৃষকদের উৎসাহও অবাক করে দেওয়ার মতো । আবাল-বৃদ্ধ-বণিতা সবারই একটাই আর্তি । ঘরের ছেলেরা ঘরের মাঠে ট্রফি জিতুক ।

কয়কটা দিন ব্রাজিলে কাটিয়ে আমিও যেন ওদের এই প্রার্থনায় সঙ্গী ।

Please Sign in or Create a free account to join the discussion

bullet Comments:

 

 

  Popular this month

 

  More from Dr Prabir Ranjan

 

PrabashiPost Classifieds



advertisement


advertisement


advertisement